ভারতবর্ষে ধর্মনিরপেক্ষতা মানে শুধুই মুসলিম তোষণ!

আমার কিছু সমাজ সংস্কারক ফেসবুক বন্ধুদেরকে প্রায়ই দেখি ফেসবুকে সেইসব খবর বা নোট পোস্ট করে যা দিয়ে তারা বোঝাতে চায় যে  আমাদের ভারতবর্ষে মুসলমানরা কতটা বিদ্বেষ এবং নির্যাতনের শিকার হয় শুধুমাত্র তার ধর্মীয় পরিচয়ের কারণে! আমিও স্বীকার করি যে ভারতবর্ষের মুসলমানরা শুধুমাত্র তাদের ধর্মীয় পরিচয়ের কারণে নির্যাতন, বিদ্বেষ বা কখনো অবহেলার শিকার হয়ে থাকেন। কিন্তু এই ধরনের ঘটনা কতটা ঘটে? গতকাল প্রকাশিত একটা খবরের পর কিছু সমাজ সংস্কারক যেন হারিয়ে যাওয়া উদ্দম আবার ফিরে পেল। ঘটনাটা হলো একজন হিন্দু বাড়িওয়ালা বিজ্ঞাপন দিয়েছে যে কোনো মুসলমান কে তিনি বাড়ি ভাড়া দেবেন না। আর হৈ চৈ এর শুরু এখান থেকেই। না কি মুসলমানদের সাথে বিভেদ তৈরী করা হচ্ছে! এটা একটা রিলিজিয়াস ডিসক্রিমিনেশন! ইত্যাদি ইত্যাদি। হ্যা, এটা ঠিক। কিন্তু আমার বক্তব্য হচ্ছে যারা এই বিষয়টা নিয়ে হৈ চৈ করছেন তারা কি উল্টোটা হলেও কি এরকম ভাবে হৈ চৈ করবেন? তারা কি মনে করেন যে শুধু মুসলমানদের প্রতি অবিচার নিয়ে কথা বললেই ধর্মনিরপেক্ষতা পালন করা হয়?

আমি ধরে নিলাম, ভারতবর্ষ শুধু হিন্দুদের রাষ্ট্র! এই দেশে শুধুই মুসলমানদের উপর অবিচার হয় আর হিন্দুরা বহাল তবিয়তে ভারতবর্ষে বাস করেন। আমি জন্মেছি হিন্দুর ঘরে। জ্ঞান হবার পর থেকে ধর্ম মানিনি। কেউ জানতে চাইলেও বলিনা। আমি আমার বন্ধুদের কাছে আবেদন জানাচ্ছি আপনারা আমাকে কলকাতার পার্ক সার্কাস অঞ্চলে এক মুসলিম বাড়িওয়ালার বাড়িতে একটা ঘর জুটিয়ে দিন।

এবার একটু শুনুন লন্ডনের কাহিনী। বেশ কয়েক বছর ধরেই আমি লন্ডন বাসী ছিলাম। আমার সাথে পরিচয় হয়েছিল সফি নামের মুর্শিদাবাদের এক বাঙালি ছেলের সাথে। একবার তার পাকিস্তানি বাড়িওয়ালা তাকে বের দিয়েছিল। কি কারণ জানিনা। সে এসে বলল আমাকে সেই ঘটনা। আমি সফিকে আমার ফ্লাটে থাকার জন্য বললাম। সে বলল, ‘দাদা আমি দেখি কোনো মুসলিম পরিবার পাই কিনা। না পেলে আপনাকে জানাবো।’ বুঝুন ঠ্যালা! সে তার বাসস্থান থেকে বিতারিত হলো..সেটা শুনে একজন মানুষ তাকে আশ্রয় দিতে চাইল আর সে কিনা তখন তার ‘জাতের / ধর্মের’ কোনো পরিবার খুজছে যেখানে সে আশ্রয় পেতে পারে!  যাই হোক সে আর জানায়নি। বোধকরি সে একটি মুসলিম পরিবার পেয়ে গিয়েছিলো। কথা প্রসঙ্গে একটা ফ্যাক্ট জানাই, সফি ‘ভালোবাসতো’ কলকাতার এক হিন্দু মেয়েকে! এবার যা বোঝার আপনারা বুঝে নিন।

যদি আমার বিজ্ঞ এবং ‘ধর্মনিরপেক্ষ’ বন্ধুদের মানসিকতাকে আমলে নিয়ে চলি তাহলে একটা বিষয় একেবারেই পরিস্কার। সেটা হলো আমাদের ভারতবর্ষ ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র নয়। তাই  আসুন এবার দেখি একটি তথাকথিত উন্নত দেশের নমুনা, যে দেশকে আমরা মানবাধিকার, আইনের শাসন ইত্যাদি ইত্যাদির জন্য একটি প্রকৃষ্ট উদাহরণ বলে মনে করে থাকি এবং তা প্রচার করি। olx.com এর মত যুক্তরাজ্যে একটি ওয়েবসাইট আছে। আপনারা চেক করে দেখতে পারেন এই লিংক (http://www.gumtree.com/flatshare/london/muslim) এ গিয়ে — দেখুন শুধু মুসলমান ভাড়াটে চাই বলে কতগুলো বিজ্ঞাপন প্রকাশ হয় প্রতি ঘন্টায়! আর এই সব বিজ্ঞাপন যারা দেয় তারা সবাই ভারত, বাংলাদেশ বা পাকিস্তান থেকে লন্ডনে আসা মানুষ।

এবারে চলুন একটু দেখি রাজনৈতিক দলের মুসলিম তোষণের এবং ধর্মীয় অনুভুতিতে সুরসুড়ি দেয়ার নমুনা। ভোট লাভের আশাতে বামুনের কন্যা তো মমতাজ বিবির বেশ ধারণ করেনই, তাছাড়াও রয়েছে নিয়ম বহির্ভূতভাবে উপঢৌকন দেয়া। সব রাজনৈতিক দলই এটা করে থাকে। তবে কেউ বেশি কেউ  কম। এমনকি সাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক দলও আলাদা বিভাগ খোলে মুসলিম জনসাধারণের জন্য; আবার সর্বহারাদের হিন্দু এলাকায় ব্যবহৃত স্লোগান মুহুর্তেই পাল্টে ধর্মের রং লেগে যায় মুসলিম এলাকায়।  এই ভন্ডামির ট্রাডিশন চলছে আজও। আর কত ভন্ডামি করবে আমাদের দেশের রাজনৈতিক দলগুলো?

যাই হোক মোদ্দা কথাটা হলো আমরা এক চোখ বন্ধ রেখে কি করে সমাজ সংস্কারের বা ধর্মনিরপেক্ষতার কথা ভাবি? যে ধারা বজায় রেখে আমার বন্ধুরা ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলছেন অথবা রাজনৈতিক নেতারা ধর্মকে ব্যবহার করছেন, সেই ধারা চলতে থাকলে কিছুদিন বাদে সাধারণ মানুষই বলবে কামদুনির ধর্ষিতা মেয়েটি হিন্দু ছিলো আর ধর্ষকেরা ছিলো মুসলমান। তখন মানুষ হয়তো অপরাধ বা অপরাধী এই বিষয়গুলোকে গুরুত্ব না দিয়ে অপরাধীর ধর্মীয় পরিচয়কেই গুরুত্ব দেবে!

This entry was posted in About, Home, Human Rights and tagged , , , , , , , . Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

w

Connecting to %s